ভিন্ন ধরনের বিজয় উৎসবের সাক্ষী থাকল আউসগ্রামের দ্বারিয়াপুর গ্রাম

ভিন্ন ধরনের বিজয় উৎসবের সাক্ষী থাকল আউসগ্রামের দ্বারিয়াপুর গ্রাম

জ্যোতি প্রকাশ মুখার্জ্জী 18 Juli 2023

পঞ্চায়েত ভোট ঘোষণার পর থেকেই বাংলার আকাশে আতঙ্কের ছায়া। ফল বের হওয়ার পর সপ্তাহ পার হলেও অন্য এক আতঙ্ক সবার মনে - শাসক দলের বিজয় উৎসবকে কেন্দ্র করে আর একদফা অশান্তির পরিবেশ সৃষ্টি হবে নাতো! কোনো কোনো জায়গায় বিরোধীরাও আক্রমণাত্মক ভঙ্গিতে বিরাজ করছে। পারস্পরিক অবিশ্বাস মাথাচাড়া দিচ্ছে সর্বত্র। দীর্ঘদিনের চেনা মানুষ, চেনা পরিবেশ কেমন যেন অচেনা হয়ে যাচ্ছে। তার মধ্যেই ভিন্ন ধরনের বিজয় উৎসবের সাক্ষী থাকল আউসগ্রাম-১ নং ব্লকের দ্বারিয়াপুর গ্রামের বাসিন্দারা। 

 পঞ্চায়েত ভোটকে কেন্দ্র করে গ্রামের মধ্যে যাতে কোনো হিংসা ছড়িয়ে না পড়ে তারজন্য 'হিংসা নয়, শান্তি চাই' নীতিকে সামনে রেখে গ্রামবাসীর মঙ্গল কামনার্থে গত ১৭ ই জুলাই অমাবস্যার দিন দলমত নির্বিশেষে গ্রামের বাসিন্দাদের উপস্থিতিতে কালীমায়ের পুজো ও যজ্ঞ করা হয়। পুজোর শেষে হাতে হাত মিলিয়ে গতকাল প্রতিটি বাড়িতে পৌঁছে দেওয়া হয় মায়ের পুজোর প্রসাদ। এইভাবেই  দ্বারিয়াপুর গ্রামে পালিত হয় বিজয় উৎসব। গ্রামের এই উদ্যোগে প্রবীণরা খুব খুশি।

পুজোয় অয়ন, সায়ন, অতনু, শুভেন্দু, শুভঙ্কর, সমীর, বিজয়, সুনীল প্রমুখরা বেশি ভূমিকা নিলেও অন্যান্যরা খুব একটা পেছিয়ে ছিলনা।

গ্রামের অন্যতম সদস্য দেবাঙ্কুর চ্যাটার্জ্জী বললেন - আমি অবশ্যই শাসকদলের কোনো একটি শাখা সংগঠনের পদাধিকারী। এখানে আমার প্রথম পরিচয় আমি একজন গ্রামবাসী। কারও অতি উৎসাহে  আমাদের গ্রামে যাতে কোনোরকম হিংসা ছড়িয়ে না পড়ে তারজন্য এই পুজোর আয়োজন। আমার সবার কাছে অনুরোধ - ব্যক্তিগতভাবে ভিন্ন রাজনৈতিক মতবাদে বিশ্বাসী হলেও গ্রামে যাতে কোনোরকম হিংসা ছড়িয়ে না পড়ে তারজন্য প্রত্যেকেই সতর্ক থাকবেন। মাথায় রাখতে হবে হিংসায় ক্ষতিগ্রস্ত হবে আমাদের দীর্ঘদিনের প্রতিবেশী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *